Waiting for Godot Bangla Summary

Key Facts:

1. Writer: Samuel Beckett (1906-89).

2. Original Title: En attendant Godot.

3. Genre: Absurd Drama/ Tragicomedy.

4. Published date: 1952 in French in the title “En attendant Godot”. 1954 in English.

ইউটিউবে ভিডিও লেকচার দেখুনঃ


5. Number of acts: Two.

6. Setting: Time Setting: Post second world war.

                   Place Setting: A country road, near a leafless tree.

7. Themes: 

  • Religion
  • Human Existence
  • Hope and Hopelessness
  • Capitalism
  • Loneliness and Despair 

Characters: 

1. Vladimir ( French name- Didi): One of the two protagonists. Perhaps the main protagonist of the play.

google news

2. Estragon: (French name- Gogo): One of the two main characters of the play, along with Vladimir.

3. Pozzo: Pozzo runs into Vladimir and Estragon while journeying along the road in both acts. He abuses Lucky and treats him as a slave.

4. Lucky: Lucky is Pozzo’s slave, whom Pozzo treats horribly and continually insults, addressing him only as “pig.” He is mostly silent throughout the play.

5. A boy: Servant of Mr.Godot. He informs Vladimir and Estragon that Mr. Godot will not come today. He may come tomorrow.

6. Godot: Godot never appears on stage. But both protagonists wait for him to come.

Absurd Drama: এই ধরনের ড্রামা গুলোতে মূলত ক্যারেক্টার কম থাকে। এখানে জীবনের অর্থহীনতা তুলে ধরা হয়। অর্থাৎ জীবনের কোন নির্দিষ্ট অর্থ নেই। যেটা কিনা সেকুলারিজমের প্রতি ইঙ্গিত দেয়। আর এই ড্রামা গুলো ট্রাজি-কমেডি কোয়ালিটির হয়ে থাকে।

Bangla Summary 

তো এই সম্পূর্ণ ড্রামা আমরা মাত্র ৬টা পয়েন্টের মাধ্যমে খুব সহজেই আমরা জানতে পারবো।

  • ১ম দিন এবং প্রথম পর্ব

১. Estragon ও Vladimir এর গডোর/Godo জন্য অপেক্ষা 

২. Lucky ও Pozzo এর আগমন

৩. গডোর খবর নিয়ে ছোট একটা ছেলের আগমন

  • ২য় দিন এবং দ্বিতীয় পর্ব

৪. দ্বিতীয় দিনেও গডোর আগমনের জন্য অপেক্ষা 

৫. দ্বিতীয় দিনেও Pozzo ও Lucky এর আগমন 

৬. দ্বিতীয় দিনেও গডোর খবর নিয়ে ছোট একটা ছেলের আগমন

  • তো চলুন এবার শুরু করা যাক

১. Estragon ও Vladimir এর গডোর/Godo জন্য অপেক্ষা 

এইটা ড্রামার শুরুতেই দেখানো হয় একটা গাছের নিচে দাঁড়িয়ে থেকে Estragon তার পা থেকে সু খোলার চেষ্টা করছে। বারবার চেষ্টা করেও সে সু খুলতে পারছে না। এরপর সেখানে Vladimir আসে। সে বলে, গতকাল সে একটা গর্ত/পরিখার ভেতরে ছিল এবং সেখানে তাকে প্রচুর মারধর করা হয়েছে। অনেক চেষ্টার পরে এসট্রাগন অবশেষে তার পা থেকে সু খুলতে সফল হয়। এরপর সে দেখে তার জুতোর ভেতরে কিছু ঢুকে আছে কিনা। এই একই কাজ Vladimir করে তার টুপির সাথে। Vladimir এরপর সেখান থেকে চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। তারপর সে নিজে থেকেই দুইটা চোরের গল্প বলতে শুরু করে। এই দুইটা চোরকে যীশু খ্রীষ্টের সাথে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। এরপর সে এসট্রাগনকে জিজ্ঞাসা করে যে, Estragon কখনো বাইবেল পড়েছে কিনা।

Estragon বাইবেল থেকে বিভিন্ন পবিত্র স্থানের ম্যাপের রেফারেন্স দেয়। এসব শুনে Vladimir বলে যে, এসট্রাগনের কবি হওয়া উচিত ছিল। এসট্রাগন তার ছেঁড়াফাটা কাপড় দেখিয়ে বলে, সে আসলেই একসময় কবি ছিল। সময় কাটানোর জন্য Vladimir আবারো ওই দুইটা চোরের গল্প বলা শুরু করে। এরপর Estragon চলে যেতে চায়। তবে Vladimir তাকে ধরে রাখে। কারণ তারা দুজনেই এখানে গডোর জন্য অপেক্ষা করছে। তবে তারা এটা জানেনা যে, তারা ঠিক জায়গায় অপেক্ষা করছে কিনা বা গডো কখন তাদের সাথে দেখা করতে আসবে। গডোর সাথে দেখা হওয়ার বিষয়ে তাদের ঠিক কি কথা হয়েছিল, এটাও তাদের মনে নেই। গডোর জন্য অপেক্ষা করতে করতে এক সময় Estragon‌ গাছের সাথে ফাঁস নিয়ে সময় কাটানোর বুদ্ধি বের করে। বুদ্ধিটা Vladimir এর খুব পছন্দ হয়। কিন্তু গাছ থেকে কে আগে ফাঁস নেবে এটা নিয়ে তাদের মধ্যে বিতর্ক তৈরি হয়। অবশেষে তারা বুঝতে পারে যে, ফাঁস নিয়ে একজন যদি মারা যায়, তাহলে আরেকজন একা হয়ে যাবে। তাই তারা ফাঁস নেওয়ার বুদ্ধি বাতিল করে। আর গডোর জন্য অপেক্ষা করতে থাকে।

Estragon Vladimirকে জিজ্ঞাসা করে, তাদের এখনো কোনো অধিকার আছে কিনা। উত্তরে Vladimir বলে মানুষ হিসেবে তাদের অধিকার আগেই শেষ হয়ে গেছে। এরপর Estragon একটা শব্দ শুনতে পায় কিন্তু বাস্তবে কোন শব্দ হয়নি। এরপর Vladimir Estragonকে একটা গাজর খেতে দেয়।

২. Lucky ও Pozzo এর আগমন

এরপর সেখানে Lucky ও Pozzo আসে। Lucky এর গলায় দড়ি বাধা রয়েছে এবং তার পিঠে Pozzo এর সকল জিনিসপত্র যেমন একটা ফোল্ডিং টুল, একটা ভারি ব্যাগ ও একটা পিকনিক বাস্কেট রয়েছে। Pozzo এর হাতে একটা চাবুক রয়েছে। এটা দিয়ে সে Luckyকে নিয়ন্ত্রণ করে। Pozzo এর এমন আবির্ভাব দেখে Estragon তাকে গডো মনে করে। Pozzo Luckyকে যা যা আদেশ করে, Lucky কোন কথা না বলে অক্ষরে অক্ষরে তা পালন করতে থাকে। টুলে বসে এবার Pozzo পিকনিক বাস্কেটে থাকা মুরগির মাংস খেতে শুরু করে। আর হারগুলো ফেলে দেয়। Lucky পিকনিক বাস্কেট নিচে ধরে রাখে। Pozzo এর প্রতিটা হুকুম পালন করার পরে Lucky এর কিছুটা তন্দ্রা ভাব দেখা দেয়। আর সে ঘুমিয়ে যায়। Estragon ও Vladimir Lucky এর এমন স্তব্ধতা দেখে অবাক হয়ে যায় এবং তাকে খুব ভালো করে দেখতে থাকে। তারা Pozzoকে জিজ্ঞাসা করে, Lucky এই ব্যাগটা নিচে রাখছে না কেন? Pozzo তাদের প্রশ্নের কোন উত্তর দেয় না।

Estragon এবার Pozzo এর ফেলে দেওয়া মুরগির হাড়গুলো নিতে যায়। তখন Pozzo বলে এই হাড়গুলো Lucky এর। Estragon Luckyকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে Lucky কোন উত্তর দেয় না। তাই Estragon হাড়গুলো নিয়ে নেয়। তবে Lucky কেন ব্যাগ নিচে রাখে না এ ব্যাপারে Estragon আবারো জিজ্ঞাসা করলে Pozzo বলে, Lucky এটা ভয় পায় যে, যদি সে আমার কথা অমান্য করে তাহলে আমি তাকে অন্য কাউকে দিয়ে দিতে পারি। এই কথা শুনে Lucky কান্না করে ওঠে। Estragon যখন তার চোখের পানি মুছে দিতে যায়। আর Lucky তাকে লাথি দিয়ে ফেলে দেয়। পজো বলে Lucky তার সাথে এভাবে ৬০ বছর ধরে রয়েছে। Vladimir এটা শুনে একদম অবাক হয়ে যায়।

Pozzo বলে Lucky তার কাছে এখন বোঝা। Vladimir এবার Luckyকে বকে তার মালিকের সাথে এমন আচরণ করার জন্য। Pozzo এবার রাতের আকাশের বর্ণনা দেয়। তার বর্ণনা শুনে Estragon ও Vladimir Pozzo এর খুব প্রশংসা করে। প্রশংসা শুনে Pozzo তাদের জন্য কিছু করার ইচ্ছা প্রকাশ করে। Estragon তার কাছ থেকে দশ ফ্রাঙ্ক (French currency) চেয়ে বসে। Vladimir তখন তাকে চুপ করে থাকতে বলে। Pozzo তখন Luckyকে তাদের বিনোদনের জন্য নাচতে বলে। Lucky নাচে এবং Estragon তাকে দেখে কপি করার চেষ্টা করে কিন্তু পারেনা। এরপর তারা দুজন Luckyকে নিয়ে ভাবতে থাকে এবং একপর্যায়ে তিনজন Lucky এর উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে। Lucky এবার কথা বলা বন্ধ করে দেয় এবং ঘুমিয়ে যায়। তার শেষ শব্দটা ছিল “Unfinished”। Lucky এর হাতে ব্যাগ দিলেই সে আবার জেগে ওঠে। এরপর Pozzo ও Lucky চলে যায়।

৩. গডোর খবর নিয়ে ছোট একটা ছেলের আগমন

এদিকে Estragon ও Vladimir গডোর জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। এরপর অল্প বয়সী একটা ছেলে এসে তাদের দুজনকে বলে তাকে গডো পাঠিয়েছে। ছেলেটির আসতে এতটা দেরি হওয়ায় Estragon তাকে অনেক বকে এবং ভয় দেখায়। এরপর ছেলেটি বলে, গডো আজকে আসবেন না। তবে কালকে অবশ্যই আসবেন। আর Estragon ও Vladimir ছেলেটিকে বলে যে, সে যেন গিয়ে গডোকে বলে, তারা গডোর জন্য অপেক্ষা করছে। এরপর ছেলেটি চলে যায়। Estragon ও Vladimir তাদের অতীত নিয়ে কিছু গল্প গুজব করে আর এখান থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু দেখা গেল কেউ তাদের জায়গা থেকে নড়ে না। ( প্রথম পর্ব শেষ)

৪. দ্বিতীয় দিনেও গডোর আগমনের জন্য অপেক্ষা 

পরের দিন একই সময়ে নাটকের দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয়। এবার ওই গাছটায় চার থেকে পাঁচটা পাতা দেখা যাচ্ছিল। Vladimir সেখানে আসে আর গান গাইতে শুরু করে। তবে Estragon এখনো সেখানে আসেনি। Estragon এর অনুপস্থিতিতে Vladimir মনের সুখে এভাবে গান গাচ্ছে দেখে Estragon এর মন খারাপ হয়ে যায়। তারা মূলত একা থাকলেই ভালো থাকে। কিন্তু তারা এটা বোঝাতে চেষ্টা করে যে, তারা দুজনে একসাথে থাকলে ভালো থাকে। তারা আবারও গডোর জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। প্রকৃতির মধ্যেই মৃত ব্যক্তিদের আওয়াজ Vladimir পেতে থাকে। তাই সে Estragon এর কাছে সাহায্য চায় এই আওয়াজ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য। তারা সিদ্ধান্ত নেয় এই পরিস্থিতি থেকে বাঁচতে একে অন্যকে বিভিন্ন প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করবে। এভাবেই তারা সময় কাটাতে থাকে।

Estragon তার দুর্বল স্মৃতিশক্তির কারণে তার অতীত ভুলে গেছে। সে নিজের সু গুলো চিনতে পারছে না, গতকালের ফাঁস নেওয়ার ঘটনা ভুলে গেছে এবং Lucky ও Pozzo এর কাহিনী ভুলে গেছে। সে সু পড়ার পরে তার পায়ে খুব সুন্দর ফিট হয়। আর গাছে দু চারটা পাতা দেখে তার মনে হয় বসন্ত চলে এসেছে। Vladimir দেখে Lucky গতকাল Estragon এর যেই পায়ে লাথি মেরেছিল, সেই জায়গাটা এখনো রক্তাক্ত হয়ে আছে। এরপর তারা এটা ওটা নিয়ে কথা বলতে থাকে। 

একসময় Vladimir Lucky এর টুপি খুঁজে পায় এবং পড়ে। তারা কিছুক্ষণ টুপি গুলো নিয়ে খেলে। এরপর Vladimir নিজের টুপি ছুঁড়ে Estragonকে জিজ্ঞাসা করে, তাকে এখন কেমন দেখাচ্ছে? এরপর তারা Pozzo এবং Lucky সেজে খেলার সিদ্ধান্ত নেয়। Estragon কিছুটা দূরে যায় এবং হাঁপাতে হাঁপাতে ফেরত আসে। এরপর সে বলে তারা ফিরে আসতেছে। Vladimir মনে করে হয়তো গডো আসতেছে। তারা ভয় পেয়ে গাছের পেছনে লুকানোর চেষ্টা করে। কিন্তু গাছটা ছোট হওয়ায় তারা লুকাতে পারে না। এক সময় তারা একে অন্যকে কটুক্তি করতে থাকে। অবশেষে তারা আবারও কোলাকুলি করে নিজেদের সম্পর্ক ঠিক করে নেয়। 

৫. দ্বিতীয় দিনেও Pozzo ও Lucky এর আগমন 

এরপর সেখানে Pozzo ও Lucky আসে। এবার Pozzo ছিল অন্ধ, আর Lucky ছিল বোবা। Lucky এদের দেখে থেমে যায়। তবে Pozzo অন্ধ হওয়ায় Lucky কেন থেমেছে তা বুঝতে পারেনা। তারা একে অন্যের সাথে ধাক্কা খায় এবং মাটিতে পড়ে যায়। তখন Estragon ও Vladimir Pozzoকে সাহায্য করার বিষয়ে ভাবতে থাকে। কিন্তু Vladimir Estragonকে জিজ্ঞাসা করে, কতজন মানুষ অপেক্ষা করে সময় কাটাচ্ছে? Estragon বলে, কয়েক বিলিয়ন মানুষ। Pozzo তাকে সাহায্য করার বিনিময়ে তাদেরকে ১০০ ফ্রাঙ্ক দিতে চায়। কিন্তু Estragon বলে এটা যথেষ্ট নয়। Vladimir বলে, তাকে তুললেই তারা চলে যাবে। তখন এরা আবারও একা হয়ে যাবে। Pozzoকে এবার তারা দুজন তুলতে যায়, কিন্তু নিজেরাও পড়ে যায়। Pozzo তাকে সাহায্য করতে বলে কিন্তু Vladimir তাকে লাথি মারে। Pozzo সেখানেই পড়ে থাকে। এদিকে Estragon ও Vladimir উঠে দাঁড়ায়। এরপর তারা Pozzoকে টেনে তোলে। Pozzo উঠেই সময় জানতে চায়। Estragon এর মতো সেও পূর্বের কিছু মনে রাখতে পারে না। 

Estragon Luckyকে কটুক্তি করতে করতে জাগাতে যায়। একসময় সে জাগা পায় এবং Estragonকে লাথি মারে। এরপর Estragon নিজের সু খুলতে যায় এবং বসে পড়ে। Vladimir এদিকে Pozzoকে বলে Luckyকে দিয়ে নাচাতে। তখন Pozzo বলে Lucky বোবা হয়ে গেছে। কিন্তু কখন থেকে বোবা হয়ে গেছে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করলে Pozzo রেগে যায়। Pozzo রেগে গিয়ে বলে, সময়ের ব্যাপারে আমাকে কিছু জিজ্ঞাসা করবে না। কারণ সময়ের বিষয়ে আমার কোন ধারণা নেই। Pozzo এবার Luckyকে উঠতে সাহায্য করে এবং চলে যায়।

৬. দ্বিতীয় দিনেও গডোর খবর নিয়ে ছোট একটা ছেলের আগমন

এরপর গত দিনের ওই ছেলেটা আবারও আসে। আসলে গডোরও কিছু মনে থাকে না। ছেলেটা বলে গডো আজ আসতে পারবেন না। তবে আগামীকাল অবশ্যই আসবেন। Vladimir ছেলেটিকে বলে, গডো যেন তাদের কথা আর ভুলে না যায়। কারণ তারা গডোর জন্য অপেক্ষা করছে। এরপর Estragon ও Vladimir চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু বেশি দূর যেতে পারে না। কারণ তাদের তো গডোর সাথে দেখা করতেই হবে। তারা আবারও গাছের সাথে ফাঁস নেওয়ার চিন্তাভাবনা করতে থাকে। তাই Estragon তার বেল্ট খুলে এটা কেমন শক্ত তার পরীক্ষা করতে দুজন ধরে টান দেয়। এতে করে বেল্ট ছিড়ে যায়। টানাটানির একপর্যায়ে Estragon এর টাউজার খুলে পড়ে গিয়েছিল। Vladimir বলে আগামীকাল তারা সত্যি সত্যি ফাঁস নেবে, যদি গডো তাদের বাঁচাতে না আসে। Estragon টাউজার পড়ে নেয়। এবার তারা চলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেও কেউ নিজের জায়গা থেকে নড়ে না। আর এই জায়গাতেই এই ড্রামা শেষ হয়ে যায়।

Moral lesson:

এখানে গডো হচ্ছে ঈশ্বর বা এমন একজন, যার আগমনে এই দুইজনের ভাগ্য পরিবর্তন হয়ে যাবে। এমনটাই তারা মনে করে। কিন্তু মানুষকে তার নিজের ভাগ্য নিজেকেই পরিবর্তন করতে হয়। এখানে জীবনকে অর্থহীন হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। অর্থাৎ নিজের ভাগ্য নিজেকেই পরিবর্তন করার চেষ্টা করতে হবে। অন্যের উপর নির্ভরশীল হওয়া বা অন্যের অপেক্ষায় থাকা মানেই নিজের জীবনকে অর্থহীন করে তোলা, এমনটাই বোঝানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

ফেসবুক পেইজ

কোর্স টপিক