fbpx

The Luncheon Bangla Summary

The Luncheon Bangla Summary

Key Facts

  • Writer: William Somerset Maugham (1874-1965)
  • About the Author: British novelist, playwright, and short-story writer.
  • Publication Date: March 1924
  • Tone: Friendly, polite, anxious, humorous, and ironic.  
  • Genre: First-person Narrative ( A modernist short story)
  • Setting: The story is set in “Paris’. 

Literary Devices

  • Irony: The story contains situational irony. The writer hopes for a simple lunch but experiences a huge cost bill, making him empty.
  • Satire: The story is a satirical commentary on social norms and deception. It also shows the difference between appearance and reality.
  • Humour: The story employs humour through the protagonist’s reactions to the woman’s actions and the extravagance of the lunch.
  • Symbolism: The lunch symbolises the woman’s extravagance and lack of concern for the protagonist’s financial limitations. 
  • First-Person Perspective: The story is told from the first-person perspective of the protagonist, allowing the reader to experience his thoughts, feelings, and reactions directly.
  • Imagery: The story implies vivid descriptions to paint a picture of the restaurant, the food, and the woman. 
  • Exaggeration: The woman’s extravagant choices, such as ordering caviar and champagne, are exaggerated for effect. 
  • Conflict: The story contains a subtle internal conflict between the protagonist’s desire to be polite and his growing frustration with the woman’s behaviour.

আরো পড়ুনঃ Long Walk to Freedom Bangla summary

Themes

  • Deception and Appearance: The narrator is charmed by the lady’s elegance and attractiveness throughout the story. However, as the story unfolds, it becomes clear that she is more concerned with flaunting her wealth and social standing than genuine friendship. As the narrator finds that her intentions are not as earnest as they first appeared, false appearances become prevalent.
  • Materialism: The lady’s attachment to wealth and elegance is visible in her restaurant pick and costly ordering. The story shows how the quest for material items can overwhelm people and affect their interactions and relationships with others.
  • Naiveté and Vulnerability: The narrator is somewhat naive and inexperienced in social etiquette and high society. The story upholds how a man who lacks worldly experience can be taken advantage of by those who are more cunning.
  • Irony and Satire: “The Luncheon” contains elements of irony and satire to criticize societal norms and how people judge others based on their outward appearances. 
  • Experiences and Memories: The story is told from the protagonist’s point of view as he reflects on this experience. This emphasizes the long-term importance of experiences and memories in a person’s life, even if they appear trivial now.

Selected Quotations

 “But I have heard my remains at last.” 

 This line is the ending occurrence of the humoral short story.

“But I was flattered and I was too young to have learned to say no to a woman.”  

The author describes how he was easily duped by a lady’s fake appreciation and how he fell prey to her abuse as a young, naive man.

“Panic seized me. It was not a question now how much money I should have left over for the rest of the month, but whether I had enough to pay the bill.”

In this excerpt, the writer describes being panicked and emotionally tortured while entertaining his lady admirer at Foyot’s, an expensive restaurant in Paris.

ইউটিউবে ভিডিও লেকচার দেখুনঃ


But when I walked out of the restaurant I had the whole month before me and not a penny in my pocket.”

The author explains how he became needy while entertaining his lady love at Foyot’s, a costly restaurant in Paris.

“But I have had my revenge at last. …………….. Today she weighs twenty-one stone”.

In this part of the story, the writer describes how he avenged his lady lover for the wrongs done to him at the restaurant twenty years ago.

Point to Note: It’s a narrative about a lunch date with a lady who likes Maugham’s stories. She gets the author’s approval and desires to see him at Foyot, a high-end restaurant. With a sense of humour, the author exposes the false motives of the middle-class’s modest eating habits in the story. The story is divided into three sections: (i) The present, (ii) The Past (20 years ago), and (iii) The present. 

আরো পড়ুনঃ Home Burial Bangla Summary (বাংলায়)

Bangla Summary 

গল্পটি একটি নাট্যশালায় শুরু হয়. এখানে লেখক দ্বিতীয় বারের মতো মহিলাটির দেখা পায়. নাটকের বিরতির সময়ে লেখক মহিলাটির পাশে গিয়ে বসে কিন্তু তাকে চিনতে পারেনা যতক্ষণ না অন্য একজন মহিলাটির নাম উচ্চারণ করে. যাই হোক মহিলাটি তাকে তাদের প্রথম সাক্ষাতের কথা মনে আছে কিনা জিজ্ঞেস করে এবং লেখক তা মনে করতে শুরু করে.

google news

লেখক তার স্মৃতিকে জাগিয়ে তুলেন। প্যারিসে তার ছোট্ট এপার্টমেন্ট ছিল যেখানে তিনি তার অল্প উপার্জন নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতেন। হটাৎ একদিন ওই মহিলা তার লেখার প্রসংশা স্বরূপ তাকে একটি চিঠি লেখে। লেখকও তাকে চিঠির মাধমে ধন্যবাদ জানায়। একপর্যায়ে মহিলাটি তার নিকট পচুর রেস্টুরেন্টে খেতে চায়. তিনি বলেন তিনি প্যারিসের পাশ দিয়েই যাচ্ছিলেন তাই তার সাথে একটু দেখা করতে চায়. লেখক এই দামি হোটেলের নাম শুনে আঁতকে উঠলেও একজন যুবক হিসেবে এখন মহিলার আবদার ফেলতে পারেননি। লেখক তাকে পরবর্তী বৃহস্প্রতিবার সাড়ে বারোটায় ওই রেস্টুরেন্টে আসতে বলেন। এদিকে তার কাছে আছে মাত্র আশি ফ্রাঙ্কস যা দিয়ে তার মাসের বাকি দিনগুলো পার করতে হবে কিন্তু ওই দামি রেস্টুরেন্টে গেলে তা আর হবে না।

আরো পড়ুনঃ Fern Hill Bangla Summary (বাংলায়)

এরপর রেস্টুরেন্টে তাদের দেখা হয় এবং লেখকের মোহ ভঙ্গ হয়. কারণ লেখক তাকে যতটা সুন্দর বা আকর্ষণীয় ভেবেছিলেন তিনি ততটা সুন্দর নন. তার বয়স ৪০ এর কাছাকাছি। মহিলাটি বললেন তিনি দুপুরের খাবারের জন্য কিছুই খাননা। লেখক তাকে অনুরোধ করলে তিনি বলেন একটি স্যামন মাছের বেশি তিনি কিছু খেতে চাননা। অথচ এই মাছটি অত্যন্ত ব্যায়বহুল। মূলত মহিলাটি পরবর্তীতে আরো দামি খাবার অর্ডার করে যেগুলোকে তিনি দুপুরের মূল খাবারের অংশ মনে করেন না. আর লেখক তার এই আচরণের মাদ্ধমে তৎকালীন সমাজের চিত্রকে বঙ্গ করেছেন। এরপর মহিলাটি  বলে ক্যাভিয়ার খেতে তার কোনো বাধা নেই. লেখক হতাশ হয়ে মহিলাটির জন্য একটি কাভাইয়ের এবং তার জন্য একটি matton chop অর্ডার করেন।

এরপর আসে ড্রিঙ্কস এর পালা। মহিলাটি খুব দৃঢ় ভাবে বলেন তিনি ড্রিঙ্কস হিসেবে কিছুই পান করেন না শুধু মাত্র ফরাসি white wine (Champagne) ছাড়া। এইবার লেখক শুধু মাত্র পানি খেতে চায় ড্রিঙ্কস হিসেবে। কেননা তার কাছে money নেই. আর এমনিতেই মহিলাটি যতগুলো অর্ডার করতেছে তার money হবে কিনা তা নিয়ে তার সন্দেহ রয়েছে। মহিলাটি এগুলো খেতে খেতে সাহিত্য এবং সংগীতের আলোচনা করে.এরপর তিনি এস্পারাগাস অর্ডার করতে বলেন। এস্পারাগাস যখন রান্না হচ্ছিলো তখন লেখক কল্পনা করছিলেন যদি তার কাছে তাকে কম পরে যায় তাহলে তিনি পকেটে হাত দিয়ে বলবেন তার সবকিছু চুরি হয়ে গেছে। তবুও যদি মহিলাটি বিল না দেয় তখন তিনি তার হাত ঘড়ি জমা দিয়ে চলে যাবেন।

আরো পড়ুনঃ Where the Mind is Without Fear Bangla Summary (বাংলায়)

খাওয়ার পর্ব শেষের দিকে এলে, লেখক মহিলাটিকে বলে তিনি আইস-ক্রিম খেতে চায় কিনা। তখন মহিলা জানায় আইস-ক্রিম এর সাথে একটু কফি হলে ভালো হয়. খাওয়া শেষে বিল পরিশোধ করার পরে লেখকের কাছে আর মাত্র তিন ফ্রাঙ্কস অবশিষ্ট আছে. এটি তিনি ওয়েটার কে upodhowkon হিসেবে দিলে মহিলাটি তা মন্দ ভাবে নেন।

দীর্ঘ বিশটি বছর কেটে গেছে। মহিলার সাথে লেখকের আবার দেখা হয়েছে। মহিলাটি এখন অনেক মোটা হয়ে গেছে। লেখক এটিকে মহিলাটির প্রতি প্রকৃতির প্রতিশোধ হিসেবে বিবেচনা করেছেন। লেখকের বর্ণনা অনুযায়ী তার ওজন এখন ১৩৩ কেজির উপরে।

Shihabur Rahman
Shihabur Rahman
Hey, This is Shihabur Rahaman, B.A (Hons) & M.A in English from National University.

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

ফেসবুক পেইজ

কোর্স টপিক